বাঁশ ফাইবার | Bamboo Fiber

এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা বাঁশ ফাইবার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারব।

বাঁশ ফাইবারকে ইংরেজিতে বেম্বো ফাইবার ব্যবহার বলা হয়। এটি প্রাকৃতিক ফাইবারের অন্তর্ভুক্ত। বাঁশ এক ধরনের ঘাস প্রজাতি থেকে উৎপাদিত সেলুলোজিক ফাইবার। পৃথিবীর সবচাইতে দ্রুত বর্ধনশীল গাছ হলো বাঁশ। বাঁশ দ্রুত বর্ধনশীল গাছের তুলনায় এক-তৃতীয়াংশ দ্রুত গজায়। বাঁশ প্রথমে ঘাস অবস্থায় থাকে তারপর খুবই দ্রুত বেড়ে দৈত্যাকার আকার ধারন করে।

এই বাঁশ বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, ভারত ও মিয়ানমারের পাওয়া যায়। বাঁশের ভিতর অনেকটা ফাঁকা থাকে। ১৫- ২০ ইঞ্চি পর পর একটা করে গিট থাকে। 

details-about-bamboo-fiber

বাঁশ থেকে ফাইবার দুটি পদ্ধতিতে উৎপাদন করা যায়।

  1. যান্ত্রিক পদ্ধতি
  2. রাসায়নিক পদ্ধতি

যান্ত্রিক পদ্ধতি

বর্তমানে প্রযুক্তি অনেক উন্নত তাই বিভিন্ন ধরনের মেশিন দ্বারা বাঁশ থেকে ফাইবার সংগ্রহ করা হয়।

রাসায়নিক পদ্ধতি

রাসায়নিক প্রক্রিয়াজাতকরণ পদ্ধতি পরিবেশ বান্ধব নয়। তবে বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ এবং কৌশলের মাধ্যমে বাঁশ থেকে ফাইবার সংগ্রহ করা হয়।

উদ্ভিদ গত ভাবে বাঁশের বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস

  1. বৈজ্ঞানিক নাম :- ব্যান্বুসা পলিমরফা (Bambusa Polymorpha)
  2. বংশের নাম :-  (Bambusoideae)

বাঁশর ফাইবার দ্বারা তৈরিকৃত পণ্য

  • ব্যান্ডেজ
  • টি-শার্ট
  • বাচ্চাদের পোশাক
  • পর্দা
  • ওয়ালপেপার
  • গৃহসজ্জার কাপড়
  • মৌজা
  • ফ্লোর ম্যাট 
  • মাদুর
  • পাপোশ, ইত্যাদি।

আপনার পছন্দ হতে পারে

ফাইবার টেস্ট সম্পর্কে জানতে :- ক্লিক করুন

কয়ার ফাইবার সম্পর্কে জানতে :- ক্লিক করুন

সিনথেটিক ফাইবার সম্পর্কে জানতে :- ক্লিক করুন

পাট বা জুট ফাইবার নিয়ে বিস্তারিত জানতে :- ক্লিক করুন

Leave a Comment