কটন ফাইবারের বোটানিক্যাল নামগুলো

যেহেতু তুলা গাছ উদ্ভিদ শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত তাই তুলা গোসিপিয়াম শ্রেণীভূক্ত। 

কটন ফাইবারের বোটানিক্যাল নামগুলো

  • গোসিপিয়াম হারব্যাকাম (Gossypium Harbaceum)
  • গোসিপিয়াম আরবোরিয়াম (Gossypium arboreum)
  • গোসিপিয়াম হিরসুটাম (Gossypium Hirsutum)
  • গোসিপিয়াম বারবাডেন্স (Gossypium Barbadense)

গোসিপিয়াম হারব্যাকাম (Gossypium Harbaceum)

এই প্রজাতির গাছ গুলো অনেকটা ঝোপের মত দেখা যায়। গাছের উচ্চতা সর্বোচ্চ ১.২ মিটার পর্যন্ত হয়। ফুলের রং হলদে হয়ে থাকে। আঁশের দৈর্ঘ্য গড়ে ২০ – ২৬ মিলিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। বাংলাদেশ, ভারত, চীন, পাকিস্তানে এই প্রজাতির গাছ জন্মায়।

গোসিপিয়াম আরবোরিয়াম (Gossypium arboreum)

এই প্রজাতির কার্পাস গাছগুলো একটু লম্বা মানে ২ – ২৫ মিটার উঁচু হয়। ফুলের রং লালচে হয়ে থাকে। আঁশের দৈর্ঘ্য ১৫ – ৩০ মিলিমিটার। ভারত, পাকিস্তান, চীন, আমেরিকা, রাশিয়ায় এর চাষ হয়।  তবে সব থেকে বেশি চাষ হয় আমেরিকায়।

গোসিপিয়াম হিরসুটাম (Gossypium Hirsutum)

এই প্রজাতির কার্পাস গাছগুলো ৩ – ৪ মি. পর্যন্ত হয়ে থাকে। ফুলের রং হলদে হয়ে থাকে কোন কোন সময় বাদামী রঙের দেখা যায়। আঁশের দৈর্ঘ্য ২৫ – ৩৫ মিলিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। এই প্রজাতির গাছগুলো সব থেকে বেশি চাষ হয় দক্ষিণ আমেরিকায় এগুলো ছাড়াও ভারত, পাকিস্তান, রাশিয়াতেও চাষ হয়ে থাকে।

গোসিপিয়াম বারবাডেন্স (Gossypium Barbadense)

এই প্রজাতির গাছগুলো অধিক লম্বা মানে ৫ মি. পর্যন্ত হয়। ফুলের রং হলদে হয়। আঁশের দৈর্ঘ্য ৩০ – ৬০ মিলিমিটার হয়। এই প্রজাতির তুলা চাষ সাধারনত মিশরে, পাকিস্তানে, ভারতে হয়ে থাকে।


পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ

আপনার পছন্দ হতে পারে

কটন ফাইবার সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

জুট ফাইবার সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

হেম্প ফাইবার সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

ফাইবার টেস্ট সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

ভেজিটেবল ফাইবার সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

Leave a Comment