পলিয়েস্টার ফেব্রিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা

এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা পলিয়েস্টার ফেব্রিক নিয়েয় বিস্তারিত আলোচনা করব।

এই পোস্টটি সবার জন্য।

বর্তমানে পলিয়েস্টার খুবই জনপ্রিয় একটি ফেব্রিক। পৃথিবীর অনেক স্থানে পলিয়েস্টার ফেব্রিকের বহু গুণের কারণে এর ব্যাপক চাহিদা। তবে ফ্যাশনের ক্ষেত্রে এর কিছু কলঙ্ক রয়েছে এর একটি কারণ হলো, পলিস্টার ফেব্রিক মানুষ নির্মিত ফাইবার দ্বারা তৈরি এটি রেশম, তুলা ফুলের মতো প্রাকৃতিক নয়। তবে এটি প্রাকৃতিক না হলেও এর ভিতর অনেক গুণ বিদ্যমান রয়েছে।

পলিয়েস্টার কি

details-about-polyester-fabric

পলিয়েস্টার একটি নন-বায়োডেগ্রেডেবল ফেব্রিক, যা পচন ধরতে ২০ – ২০০ বছর পর্যন্ত সময় নিতে পারে। আমি সম্প্রতি একটি বিজ্ঞান বইয়ে পড়েছি, ভবিষ্যতে টেক্সটাইলের অধিকাংশে কৃত্রিম ফাইবার ব্যবহার করা হবে। পলিয়েস্টার ফেব্রিক কৃত্রিম ফাইবার দ্বারা নির্মিত। পলিয়েস্টার ফাইবার তৈরি করার যে প্রসেস তা আমাদের পরিবেশের জন্য অনেক ক্ষতিকর। কারণ এ ফাইবার তৈরি হওয়ার সময় যে বিষাক্ত ধোঁয়াগুলো কারখানা থেকে বের হয় তা মোটেও পরিবেশ বান্ধব নয়।

আমি গুগলে সার্চ করলাম, যে পুলিশ  থেকে কত শতাংশ পোশাক উৎপন্ন হয়? একটি ওয়েবসাইট থেকে যা পেলাম তা অবাক করার মত কান্ড! কারণ বর্তমানে পলিস্টার প্রায় ৭০ শতাংশ পোশাকের মধ্যে পাওয়া যায়। এটি প্রায় ২৭.৮ মিলিয়ন টন পলিস্টারের সমান হয়।

পলিয়েস্টার ফেব্রিক

details-about-polyester-fabric

পলিয়েস্টার ফাইবার থেকে পলিস্টার ফেব্রিক উৎপন্ন হয়। আরো পলিয়েস্টার ফাইবার সম্পূর্ণটাই কৃত্রিম/মানুষ নির্মিত ফাইবার। মূলত খনিজ তেল, কয়লা, বাতাস, টেরিপথ্যালিক অ্যাসিড ও প্যারা হাইড্রোক্সিল বেনজিন উপকরণ দ্বারা পলিয়েস্টার ফাইবার তৈরি করা হয়। এছাড়াও ডাইহাইড্রিক অ্যালকোহলের সাথে ডিকারবক্সিলিক অ্যাসিড বিক্রিয়া করে তৈরি করা যায়। বর্তমানে পলিয়েস্টার পোশাক তৈরির ক্ষেত্রে শীর্ষ স্থানীয় কাপড়।

পলিয়েস্টার ফেব্রিক এর বৈশিষ্ট্যযুক্ত গুণাবলী

details-about-polyester-fabric

পলিয়েস্টার ফেব্রিকে অনেক ধরনের গুনাগুন বিদ্যমান রয়েছে। তাই এই পলিস্টার ফাইবার দ্বারা তৈরিকৃত পোশাকে মানুষ দুর্দান্ত পছন্দ করে।

  • পলিয়েস্টার ফেব্রিক খুবই শক্তিশালী এবং টেকসই।
  • পলিয়েস্টার খুবই সস্তা।
  • পলিয়েস্টার খুবই হালকা এবং নমনীয়।
  • পলিয়েস্টার ফেব্রিক অন্যান্য ফেব্রিকের তুলনায় বেশি সময় ব্যবহার করা যায়।
  • পলিয়েস্টার ফেব্রিক ডাইং করা খুবই সহজ।
  • পলিয়েস্টার উচ্চ তাপমাত্রায় সংকুচিত হয়ে যায়।
  • পলিয়েস্টার ফেব্রিকের পানি শোষণ ক্ষমতা খুবই কম।
  • পলিয়েস্টার পুনর্ব্যবহারযোগ্য (পলিয়েস্টার ফেব্রিক রিসাইকেলিং করা যায়)

সাটিন ফেব্রিক সম্পর্কে জানতে – ক্লিক করুন

সিভিসি ফেব্রিক সম্পর্কে জানতে – ক্লিক করুন

ফেব্রিক কি এবং ফেব্রিকের প্রকারভেদ সম্পর্কে জানতে – ক্লিক করুন

ফেব্রিক ইন্সপেকশন সম্পর্কে জানতে – ক্লিক করুন

2 thoughts on “পলিয়েস্টার ফেব্রিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা”

  1. পাইকারি ফেব্রিক কিনার জন্য যোগাযোগ করুন।
    মিল্কি ফেব্রিক্স।
    যোগাযোগ নাম্বার : ০১৮৭২৪২৯২২৮

    Reply

Leave a Comment