অনলাইন বিজনেস কিভাবে শুরু করবেন

আসসালামু আলাইকুম, আপনারা অনেকেই জানতে চেয়েছেন কিভাবে অনলাইন বিজনেস শুরু করা যায় তাই আপনাদের সামনে এই পোস্টটি নিয়ে হাজির হলাম। আমি চেষ্টা করব অনলাইন বিজনেস এর জন্য যে বিষয় গুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ সেগুলো আপনাদেরকে জানাতে।

নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের উপর লক্ষ রাখতে হবে

  • প্রডাক্ট সিলেক্ট
  • প্রোডাক্ট ডেলিভারি
  • আপনার বিজনেস টি কিভাবে অনলাইনে আনবেন
  • কনটেন্ট তৈরি করতে হবে
  • বিজনেস প্রমোট

প্রডাক্ট সিলেক্ট

প্রডাক্ট সিলেক্ট

অনলাইনে বিজনেস করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে প্রোডাক্ট সিলেক্ট করতে হবে। যে আপনি কোন পণ্য নিয়ে অনলাইনে ব্যবসা করতে চাচ্ছেন। প্রডাক্ট সিলেক্টের ক্ষেত্রে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে এই পণ্যটি আপনি অনলাইনে বিক্রি করতে চাচ্ছেন তা মানুষ অনলাইন থেকে কিনে কিনা। এরকম অনেক প্রোডাক্ট আছে যা মানুষ প্র্যাকটিক্যালি দোকানে গিয়ে কিনে নিয়ে আসে।

আপনাকে চিন্তা করতে হবে আপনি যে প্রোডাক্টটি বিক্রি করবেন তা আপনি নিজে তৈরী করছেন? নাকি কোথাও থেকে সোরর্সিং করে প্রোডাক্টটি এনে বিক্রি করবেন। যদি কোথাও থেকে প্রোডাক্টটি সোরর্সিং করে এনে বিক্রি করে থাকেন তাহলে আগে থেকেই চিন্তা করতে হবে যে প্রোডাক্টটি সোরর্সটি সবসময় থাকবে কিনা। কারণ আপনি যেহেতু বিজনেসও শুরু করছেন হঠাৎ যদি মাঝ পথে গিয়ে প্রডাক্ট সোরর্সিং বন্ধ হয়ে যায় তাহলে কিন্তু আপনার সামনে বড় ধরনের একটি বাঁধা চলে আসবে।

প্রোডাক্ট ডেলিভারি

প্রোডাক্ট ডেলিভারি

যখন আপনার ব্যবসাটা অনলাইনে চলে আসবে তখন যে কোন সময় আপনার কাছে অর্ডার আসতে পারে। সুতরাং ব্যবসা শুরু হওয়ার আগেই প্রোডাক্ট ডেলিভারি কিভাবে করবেন তা ভেবে নিতে হবে। প্রোডাক্ট ডেলিভারি আপনি নিজেও করতে পারেন কিন্তু সাধারণভাবে এটা হয় না। ডেলিভারির জন্য আপনি চাইলে কাউকে রাখতে পারেন আবার থার্ড পার্টি বেশকিছু ডেলিভারি কোম্পানি রয়েছে আমাদের দেশে চাইলে আপনি তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

থার্ড পার্টি ডেলিভারি কোম্পানি গুলো

আপনার বিজনেসটা কিভাবে অনলাইনে আনবেন 

অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় অনেকেই এক্ষেত্রে অনেক জটিলতায় পড়ে যায়। কি নিয়ে বিজনেস করবে তাও আগে থেকে ঠিক করা থাকে আবার প্রোডাক্ট ডেলিভারি ব্যাপারটাও আগে থেকে গুছানো থাকে। কিন্তু বিজনেসটা কিভাবে অনলাইনে আনবে তা নিয়ে অনেক জটিলতায় পড়ে যায়। 

বিজনেসটা আপনি চাইলে নিজেও অনলাইনে আনতে পারেন কিছু প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে।

যেযন‌ :- 

  • ওয়েবসাইট

আবার আপনি যদি এগুলোর মাধ্যমে প্রোডাক্ট বিক্রি করতে আগ্রহী না হন তাহলে অন্যান্য ব্যবস্থা ও রয়েছে, আপনি চাইলে বাংলাদেশের মার্কেটপ্লেস গুলো ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার কাছে যদি বেশি পণ্য হয়ে থাকে তাহলে এগুলো ব্যবহার করলে ভালো হবে।

বাংলাদেশের মার্কেটপ্লেস গুলো

কনটেন্ট তৈরি করা

অনলাইন আমরা যা দেখি তার সবকিছুই কনটেন্ট কিন্তু বিজনেস এর দিক থেকে চিন্তা করতে গেলে আপনি আপনার বিজনেস নিয়ে যে রকম পোস্ট করবেন বিভিন্ন আকর্ষণীয় ছবি ইত্যাদি অনলাইনে আপলোড করাই হল কনটেন্ট। কনটেন্ট তৈরি করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারন মানুষ কনটেন্ট দেখি আপনার পণ্য ক্রয় করতে আগ্রহী হবেন। যত অ্যাট্রাক্টিভ কনটেন্ট তৈরি করা যাবে ততবেশি সেল দেওয়া যাবে।

বিজনেস প্রমোট

বিজনেস প্রমোট মানে হচ্ছে প্রচার প্রচারণা। অনলাইন বিজনেস হোক বা অফলাইন বিজনেস হোক প্রমোট করাটা খুবই জরুরী। আপনার প্রোডাক্ট আছে, আপনার প্রডাক্ট ডেলিভারির ব্যবস্থা রয়েছে, আপনার বিজনেস অনলাইনে রয়েছে, এখন আপনাকে বিজনেস প্রমোট করতে হবে। প্রমোট করার ক্ষেত্রে আপনারা অনেকেই মনে করবেন যে বুষ্ট মেরে দিলেই হয়ে যায় বিষয়টা আসলে একদম এরকম না। বিজনেস প্রমোট বিভিন্নভাবে করা যায়।

অনলাইন বিজনেস করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এই পাঁচটি। সুতরাং কেউ যদি ভালোভাবে এই পাঁচটি দিক খেয়াল রেখে অনলাইন বিজনেস স্টার্ট করতে পারে তাহলে অবশ্যই সে সফল হবে।

আপনার পছন্দ হতে পারে

গার্মেন্টসে পোশাক তৈরি করার জন্য বিভিন্ন কাপড় সমূহ

গার্মেন্টস পোশাক তৈরি করার জন্য বিভিন্ন ধরনের কাপড় ব্যবহার করা হয়। এক এক ধরনের পোশাক তৈরি করার জন্য একেক রকম কাপড় ব্যবহার করা হয়। তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক গার্মেন্টসে পোশাক তৈরি করার জন্য কি কি কাপড় ব্যবহার করা হয়। গার্মেন্টসে পোশাক তৈরি করার জন্য বিভিন্ন কাপড় সমূহ জিন্স (Jeans)গ্যাবার্ডিন (Gabardine)ডেনিম (Denim)ড্রিল (Drill)পপলিন (Poplin)শীটিং (Sheeting)শাটিং…

Continue reading

টেক্সটাইল বিজনেস কিভাবে শুরু করবেন

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে টেক্সটাইলের গুরুত্ব অনেক বেশি। কারণ অফিসের জন্য স্যুট টাই আবার কোন অনুষ্ঠানে খাদি কাপড়ের তৈরি আউটফিট পোশাক পড়া, স্কুলড্রেস, জিন্স, শাড়ি, ট্রাডিশনাল ড্রেস থেকে ফর্মাল ড্রেস এইসব টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রি থেকে আসে। আর আজকে টেক্সটাইল বাংলার টিম আপনাদেরকে বলবে, আপনি যদি টেক্সটাইলে আপনার ভবিষ্যৎ গড়তে চান অথবা আপনি যদি নিজের টেক্সটাইল বিজনেস শুরু…

Continue reading

ওয়াশিং মেশিন সম্পর্কে বিস্তারিত

ওয়াশিং মেশিন কি আমরা সবাই জানি ওয়াশিং মেশিন হচ্ছে একটি কাপড় ধোয়ার মেশিন। আরো সাধারণভাবে বলতে গেলে, ওয়াশিং শব্দের অর্থৈ ধৌতকরণ কে বোঝায় আর মেশিন হচ্ছে একটি ডিভাইস যার মাধ্যমে কাপড় ধোয়ার কাজ সম্পন্ন করা হয়। এই মেশিনের সাহায্যে কাপড় ধৌত করলে কোন রকম শারীরিক পরিশ্রম করতে হয় না। শুধুমাত্র মেশিনের মধ্যে যা যা কেমিক্যাল…

Continue reading

হ্যান্ড স্ক্রিন প্রিন্টিং ভিডিও সহ

হ্যান্ড স্ক্রিন প্রিন্টিং একটি অন্য রকম কৌশল যা খুব সহজেই নির্ভরতা সাথে ফেব্রিক এর উপর যে কোনো ধরনের বড় প্রিন্টিং ফুটিয়ে তোলা সম্ভব। একটি প্রাচীন একটি কৌশল যা সময়ের সাথে সাথে বিকাশিত হচ্ছে। কিন্তু আরো অনেক উন্নত স্ক্রিন প্রিন্টিং বের হবার কারণে এটি খুবই সাধারণ হয়ে গেছে।  সাধারণত লম্বা আকৃতির শেডের মধ্যে লম্বালম্বিভাবে প্রিন্টিং টেবিলগুলো…

Continue reading

ওয়াশিং মেশিনের সাবধানতা

দৈনন্দিন জীবনে মানুষ তার জীবনকে আরও সহজ এবং স্বচ্ছন্দ বোধ করে তোলার জন্য বিভিন্ন জিনিস ব্যবহার করে। কর্মব্যস্ততার জীবনে একটু আরাম আয়েশের জন্য আমরা যে জিনিসগুলো ব্যবহার করি তার মধ্যে ওয়াশিং মেশিন অন্যতম। তবে ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার করার ক্ষেত্রে কিছু সাবধানতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। ওয়াশিং মেশিন দিয়ে কাপড় ধোয়ার ক্ষেত্রে আমরা অনেকেই একই ভুল করে…

Continue reading

ওয়াশিং মেশিন কেনার সময় লক্ষণীয় বিষয়

দুনিয়ার সমস্ত মানুষের সময়ের সাথে সাথে আপডেট বা উন্নত হচ্ছে। মানুষের সাথে সাথে আশেপাশের সমস্ত আসবাবপত্র ও উন্নত হচ্ছে। কাপড় ধোয়ার প্রচলন প্রাচীন আমল থেকেই আসছে। কিন্তু এখন আর মানুষ আগের মত কষ্ট করে কাপড় ধৌত করতে চায় না। তাই নতুন প্রযুক্তির সাহায্যে আবিষ্কৃত হয়েছে নতুন নতুন ওয়াশিং মেশিন যা দ্বারা খুব সহজেই কোন কষ্ট…

Continue reading

পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ

আরো ভালো ভালো পোস্ট পেতে টেক্সটাইল বাংলাকে সাবস্ক্রাইব করুন

Leave a Comment