প্রিন্টিং ফেব্রিকের বৈশিষ্ট্য

প্রিন্টিং ফেব্রিক সম্পর্কে অনেকেই জানতে চেয়েছেন। আজকের পোষ্টের মূল আলোচ্য বিষয় প্রিন্টিং ফেব্রিকের বৈশিষ্ট্য।

  • প্রিন্টিং ফেব্রিক সাধারণত আংশিক রং করা থাকে ‌ অর্থাৎ কাপড়ের সম্পূর্ণ বহর জুড়ে বিভিন্ন রকমের রং দ্বারা রঞ্জিত থাকে।
  • প্রিন্টিং করা কাপড়ে এক বা একের অধিক রঙের বিভিন্ন ডেপথ এর ডিজাইন যুক্ত থাকে। সর্বোচ্চ কতটি রঙে রঞ্জিত করা হবে তা নির্দিষ্ট নেই তবে ৮ টির বেশি বর্ণের রং সমাহার সচরাচর দেখা যায় না।
  • কোন ধরনের রং ছাড়াও কাপড়কে প্রিন্ট করা যায়। যেমন :- বার্ন আউট প্রিন্ট‌।
  • প্রিন্ট করা কাপড় সব সময়েই প্রিন্ট ছাড়া কাপড় অপেক্ষায় বেশি আকর্ষণীয় দেখায়। 
  • প্রিন্ট কাপড়ের ক্ষেত্রে সাধারণত ফেস সাইড এবং ব্যাক সাইড বিভিন্ন রকমের দেখায়। প্রিন্ট করা হয় বলে ব্যাকসাইড অপেক্ষায় ফেস সাইড বেশি উজ্জ্বল দেখায়।
  • কাপড়কে পিগমেন্ট দ্বারা প্রিন্ট করা হলে কাপড়ের প্রিন্টেড অংশটুকু প্রিন্ট ছাড়া অংশের থেকে একটু কঠিন অর্থাৎ শক্ত হয়ে যায়।
  • কাপড়কে ডিসচার্জ প্রিন্ট করা হলে প্রিন্টেড অংশটুকু পৃন্ট ছাড়া অংশের থেকেও দুর্বল ও নরম হয়।
  • প্রিন্টেড কাপড় সাধারণত একটু দামি হয়। কারণ কাপড় প্রিন্ট করার জন্য বিভিন্ন মেশিন এবং কেমিক্যাল এর প্রয়োজন হয় তাই পৃন্ট বিহীন কাপড়ের থেকে প্রিন্টেড কাপড়ের দাম একটু বেশি হয়।

আপনার পছন্দ হতে পারে

পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ

আরো ভালো ভালো পোস্ট পেতে টেক্সটাইল বাংলাকে সাবস্ক্রাইব করুন

Leave a Comment