শীতে শরীরে ত্বক ভালো রাখার কিছু টিপস

শীতের সময় সাধারণত মানুষের শরীরের ত্বক রুক্ষ, শুষ্ক হয়ে থাকে। ত্বক রুক্ষ শুষ্ক থেকে বাঁচানোর জন্য অনেকেই অনেক পদ্ধতি অবলম্বন করে থাকে। কিন্তু আলসেমি আপনি একটু সচেতন হলেই আপনার ত্বক থাকবে প্রাণবন্ত ও সুন্দর ত্বক।

আপনার ত্বক প্রাণবন্ত ও সুন্দর রাখার জন্য নিচের টিপসগুলো অবলম্বন করুন।

পানি পান 

শীতের সময় পানি ঠান্ডা থাকার কারনে অনেকেই কম পানি পান করেন। এই অভ্যাসটি বাদ দিয়ে বেশি করে পানি পান করতে হবে। বেশি করে পানি পান করার ফলে আপনার শরীরের বিভিন্ন অংশ এবং ত্বক ভালো থাকবে।

গোসল

শীতের সময় পানি এমনিতেই ঠান্ডা থাকে আলসেমির কারণে অনেকেই ঠিকমতন গোসল করে না। এই অভ্যাসটা ত্যাগ করে ঠান্ডা পানির সাথে হালকা কুসুম গরম পানি মিশিয়ে প্রতিদিন গোসল করতে হবে। গোসল করার পরে শরীরে লোশন কিংবা ভালো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারেন তার ফলে ত্বকের শুষ্ক ভাব দূর হবে।

সতর্কতাঃ অতিরিক্ত সাবান, ক্যামিকেল যুক্ত সাবান ত্বকে ব্যবহার করা যাবে না।

ঠোঁটের যত্ন

শীতের দিনে ঠোঁট বেশি শুষ্ক হয়ে পরে। শুষ্ক ঠোঁট ভালো রাখার জন্য অনেকেই অনেক পন্থা অবলম্বন করে থাকেন। তবে বেশির ভাগই ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করে থাকেন। পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার না করে ঠোঁটে নিয়ম মেনে গ্লিসারিন ব্যবহার করতে পারেন।

সতর্কতাঃ পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহারের ফলে ঠোঁট কালো হয়ে যায়।

হাতের যত্ন

হাতের যত্ন নেওয়ার জন্য লোসন করতে পারেন। লোশন ব্যবহার করলে হাতের ত্বক শুষ্ক ভাব দূর হয়ে যাবে।

পায়ের যত্ন

পায়ের যত্ন নেওয়ার জন্য লোশন এবং ভেসলিন ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে পায়ের শুষ্ক এবং রুক্ষ ভাব দূর হবে।

পায়ের গোড়ালি যত্ন

শীতের সময় অনেকেরই পায়ের গোড়ালি ফেটে যায়। তাই অনেকে চিন্তিত হয়ে পরেন চিন্তিত হবার কোন কারণ নেই। গোসল করার পরে পায়ের গোড়ালি ভালো করে ঘষে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করুন। আশাকরি কয়েকদিনের ভিতরে ভালো ফল পাবেন।

চুলের যত্ন

শীতের সময় চুলে খুশকি হওয়ার পাশাপাশি মাথার ত্বক শুষ্ক হয়ে পরে। তাই শীতের সময় চুলের যত্ন নেওয়ার খুবই জরুরী। প্রতিদিন গোসল করুন শ্যাম্পু ব্যবহার করুন এবং মাথায় চুলের জন্য উপযোগী তেল ব্যবহার করুন।

সতর্কতাঃ সম্পূর্ণ গরম পানি মাথায় দিবেন না।

শরীরের যত্ন

নিয়মিত শাকসবজি খাবেন। বেশি করে ভিটামিন যুক্ত খাবার খাবেন। যদি সম্ভব হয় তাহলে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার বেশি খাবেন।

সতর্কতাঃ তৈলাক্ত খাবার পরিহার করতে হবে।

Leave a Comment