টেক্সটাইল কেমিক্যাল ব্যবসা

যে কোন ব্যবসা করার আগেই প্রথমত আপনাকে ওই ব্যবসা সম্পর্কে কিছু ধারনা থাকতে হবে। যদি কোন ধারনা না থাকে তাহলে আগে ধারণা নিতে হবে তারপর বিজনেস করার জন্য পদক্ষেপ নিতে হবে। আজকের এই পোষ্টে যেহেতু টেক্সটাইল কেমিক্যাল ব্যবসা সম্পর্কে আলোচনা করব তাহলে আগের সম্পর্কে কিছু ধারনা দেয়া যাক।

বর্তমানের ব্যবসার বাজার দেখতে গেলে কেমিক্যাল ব্যবসা একটি অত্যন্ত লাভজনক ব্যবসা। এটি খুব লাভজনক ব্যবসা বলে হুট করে অনেক টাকা ইনভেস্ট করে ফেলবেন এরকম কিছু না। প্রথমত আপনাকে যেকোন একটি সাইট ধরতে হবে।

টেক্সটাইল ব্যবসা

যেমন :- টেক্সটাইল কেমিক্যাল বিভিন্ন জায়গায় ব্যবহৃত হয়, ফিনিশিং সেক্টর, ডাইং সেক্টর, প্রিন্টিং সেক্টর যদি আরো বিভিন্ন সেক্টর এ ব্যবহৃত হয়। 

আমাদের দেশে চার হাজারের উপরে গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রি রয়েছে এর মধ্যে ২৮% গার্মেন্টসে ডাইং রয়েছে। এই ডাইং প্রচুর পরিমাণ কেমিক্যালের প্রয়োজন হয়, এখানে রয়েছে ইয়ার্ন ডাইং, নিট ডাইং, ওভেন ডাইং, অল ওভার প্রিন্টিং, ফিনিশিং কেমিক্যাল প্রায় প্রতিটি স্থানেই কেমিক্যাল এর প্রয়োজন হয়। এখানে হাজার হাজার টাইপের এবং হাজার ধরনের কেমিক্যাল ব্যবহার হয়। 

এখন আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হলো যে কোন একটি টাইপ ফিক্স করতে হবে, যে আমি এই টাইপের কেমিক্যাল নিয়ে এই সেক্টরে ব্যবসা শুরু করতে চাই। যদি আপনি একদমই নতুন হয়ে থাকেন তাহলে আপনি চাইলে বেসিক কেমিক্যাল দিয়ে শুরু করতে পারেন।

টেক্সটাইল কেমিক্যাল

যেমন :- সোডা, লবণ ইত্যাদি এগুলো সাধারণত ডাইং এ ডজিং করার সময় ব্যবহার করা হয়। আর এইগুলো ক্রেতাকে বুঝানো খুব সহজ। এভাবে করেই আপনাকে প্রথমে যে কোন এক দিকে মনোনিবেশ করে ব্যবসাটা শুরু করতে হবে। 

আবারও একই কথা বলছি, প্রথমে আপনাকে যেকোন একটি কেমিক্যাল নিয়ে একটি সেক্টরে শুরু করতে হবে। কারণ টেক্সটাইল কেমিক্যাল এর বিজনেস টি খুব বিশাল যা আপনি নিজে ফিল্ডে না নামলে কখনোই বুঝতে পারবেন না।

আর এই পুরো কেমিক্যাল বিজনেস সম্পর্কে বিস্তারিত দুই একটি পোস্ট করে কিংবা ইউটিউবে দু-একটি ভিডিও দেখে বোঝা সম্ভব নয়। নিজে প্র্যাকটিক্যালভাবে করে বুঝতে হবে। কারণ একেক ফ্যাক্টরিতে একেক ধরনের পলিসি। আর আপনি নিজে চাইলেও এটা খুব তাড়াতাড়ি শেখা সম্ভব না। হ্যাঁ কিন্তু আপনি যদি শুরু থেকে ছোট থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে আপনার বিজনেসটিকে বড় করেন তাহলে আপনি আপনার এই বিজনেস নিয়ে যে কোন পর্যন্ত যেতে পারবেন তার কোনো শেষ নেই। কারণ আমাদের দেশে এর চাহিদার কোনো শেষ নেই। 

কেমিক্যাল-ব্যবসা

এখন আপনাকে খুঁজতে হবে তাকে যে নাকি কোম্পানির কেমিক্যালের ক্রয় করার দায়িত্ব থাকে। এক এক কোম্পানির এক এক জন দায়িত্বে থাকে। যেমন দেখা গেছে কোন কোম্পানির জিএম এর কাছে এই দায়িত্ব রয়েছে। আবার কোন কোম্পানিতে নির্দিষ্ট কর্মচারী রয়েছে যে কেমিক্যাল ক্রয় করা দায়িত্বে থাকে। আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে কোন কোম্পানির কোন লোকটা কেমিক্যাল ক্রয় এর সাথে জড়িত। তাকে খুঁজে বের করে তার সাথে ভালো ভাবে আলাপ করতে হবে। আপনার কেমিক্যাল এর স্যাম্পল দেখিয়ে প্রাইস নেগোসিয়েশন করে তাকে কনভেন্স করতে হবে।

এ ক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে :- কিভাবে স্বল্পমূল্যে ভালো কেমিক্যাল দেওয়া যায়। কারণ কেমিক্যাল বিজনেস এর মধ্যে খুব বেশি কারচুপির স্কোপ আছে। ভাই খুব সাবধান যদি ব্যবসা কি টিকিয়ে রাখতে চান অনেক দিন ব্যবসা করতে চান তাহলে সততার সাথে ব্যবসা করতে হবে। অসৎ হয়ে কখনোই ভালোভাবে ব্যবসায় টিকে থাকা সম্ভব নয়।

Note. আমাদের ওয়েবসাইটে কেমিক্যাল সম্পর্কিত আরও অনেক তথ্য দেওয়া রয়েছে আপনি চাইলে তা ভিজিট করতে পারেন। 

কেমিক্যাল বিজনেস সম্পর্কে আরও ভালো ভালো আইডিয়া দেওয়া হবে পর্যাক্রমে। 

আপনার পছন্দ হতে পারে

পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ

আরো ভালো ভালো পোস্ট পেতে টেক্সটাইল বাংলাকে সাবস্ক্রাইব করুন

Leave a Comment